ঢাকা, মঙ্গলবার ১৫ জুন ২১ || ১ আষাঢ় ১৪২৮    Banglarpratidin.com

২১শে আগষ্ট হামলাকারীদের শাস্তির দাবীতে ত্রিশাল উপজেলা আ'লীগের প্রতিবাদ সভা।।

আরিফ রব্বানী

প্রকাশিত: ১১:০৭ ২২ আগস্ট ২০

২১শে আগষ্ট হামলাকারীদের শাস্তির দাবীতে ত্রিশাল উপজেলা আ'লীগের প্রতিবাদ সভা।।

২১শে আগষ্ট হামলাকারীদের শাস্তির দাবীতে ত্রিশাল উপজেলা আ'লীগের প্রতিবাদ সভা।।

২১ অাগস্ট বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে ও দোষীদের দৃষ্টান্ত মোলক শাস্তির দাবীতে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে ২১আগস্ট শুক্রবার বিকালে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক, ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এ এন এম শোভা মিয়া আকন্দের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক নবী নেওয়াজ সরকার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক, ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য ইকবাল হোসেন। ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম মন্ডলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রনেতা ও ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য নয়ন তালুকদার, ত্রিশাল উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মানিক মিয়া, ত্রিশাল উপজেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক তফাজ্জল হোসেন, ত্রিশাল উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি স্বপন সরকার, ত্রিশাল উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জহির সরকার, ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আব্দুল মালেক সামী সহ কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামিলীগ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। প্রতিবাদ সভায় বক্তারা-২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার ভয়াবহতা বর্ননা দিয়ে বলেন, ২১শে আগস্টে এই বর্বরোচিত হামলা চালিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্রকে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিল বিএনপি জামায়াত জোট সরকার। তারা ভেবেছিল শেখ হাসিনাকে হত্যা করে তারা বাংলাদেশের মানুষকে জিম্মি করে দেশ পরিচালনার ক্ষমতায় বসবেন। কিন্তু তাদের সেই ষড়যন্ত্র সফল হয়নি। তাদের ভয়াবহ হামলার হাত থেকে শেখ হাসিনা প্রাণে বেঁচে গেছেন। কিন্তু ওই দিনের ঘটনায় অনেক নেতা-কর্মী প্রাণ হারিয়েছেন। বক্তারা হামলায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। পরে আলোচনা সভা শেষে হামলায় নিহত সকল শাহাদাৎ বরনকারী নেতা-কর্মীদের স্মরণে দোয়া ও আহত নেতা-কর্মিদের সুস্থ্যতা এবং বঙ্গকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত