ঢাকা, সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২১ || ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮    Banglarpratidin.com

ময়মনসিংহে ভিক্ষুক হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন করে তার পরিবার ও এলাকাবাসী

প্রকাশিত: ২২:৫৯ ১৯ নভেম্বর ২১

ময়মনসিংহে ভিক্ষুক হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন করে তার পরিবার ও এলাকাবাসী

ময়মনসিংহে ভিক্ষুক হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন করে তার পরিবার ও এলাকাবাসী

মফিদুল ইসলাম লাভলু(ময়মনসিংহ) ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার মানিকপুর সাং নিবাসী বাড়ির সীমানা নিয়ে প্রতিবেশীদের বিরোধের জেরে ভিক্ষুক মোছাঃ শহর বানুকে নৃশংসভাবে হত্যা করায় হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেন অসহায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক স্বামী মোঃ সুরুজ আলী ও পরিবারবর্গ এবং এলাকাবাসী। গত ১৭ নভেম্বর বুধবার নগরীর ফিরোজ জাহাঙ্গীর চত্বরে উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন আনোয়ার হোসেন, মাসুদ, সুজন,সুহেল,রহুল আমিন ও শহরবানুর পরিবারবর্গ সহ প্রমুখ। বক্তব্যে তাদের একটাই দাবি ছিলো শহর বানুকে নৃশংসভাবে হত্যা করায় হত্যাকারীদের ফাঁসি ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি। এছাড়াও স্ত্রী'র হত্যার বিচার দাবি করছেন গরীব অসহায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক স্বামী মোঃ সুরুজ আলী ও তার ছেলে মোঃ উজ্জ্বল হোসাইন। মায়ের হত্যারকারীদের বিচারের জন্য ছেলে মোঃ উজ্জ্বল হোসাইন, পিতা -মোঃ সুরুজ আলী বাদী হয়ে বিবাদী মোঃ আঃ মান্নান (৪০),পিতা- খালেক,মোছাঃ মাজেদা খাতুন(৩৫)স্বামী মোঃ আব্দুল মান্নান, মোছাঃ মিনহা খাতুন(১৮),পিতা- মোঃ আঃ মান্নান, সর্ব সাং মহিষবাড়ী, থানা- মুক্তাগাছা,জেলা ময়মনসিংহের বিরুদ্ধে মুক্তাগাছা থানায় মামলা দায়ের করেন। মুক্তাগাছা থানার মামলা নং- ১২,তারিখ ১৭/১০/২০২১ ইং। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৩০/০৯/২০২১ ইং তারিখে সন্ধ্যা সময় বিবাদীগণ বাদীদের সত্ত্ব দখলীয় আবাদি জমিতে অনধিকার প্রবেশ করিয়া বাঁশের বেড়া ভাংচুর করে। বিবাদীরা বেড়া ভাংচুর করতে দেখে মোছাঃ সহর বানু (৫০) ও রেহানা (২২) এবং দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সুরুজ আলী কারণ জিজ্ঞেস করতে গেলে বিবাদীগণ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং এক পযার্য়ের বিবাদীরা লাঠি নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায় এবং তাদেরকে বাইরাইয়া ফুলা জখম করে। তাদের ডাকচিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে তাদেরকে উদ্ধার করে ফুলবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। কর্তব্যরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করে সুরুজ আলী ও রেহেনাকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে।পরবর্তীতে মোছাঃ সহর বানুকে নিয়ে মুক্তাগাছা উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন এবং সহর বানুর শারীরিক অবস্থা অবনতি হলে ডাক্তার সহর বানুকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। সহর বানু ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২০ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আইসিইউতে মারা যায়। এ বিষয়ে হামলায় নিহত সহর বানু ছেলে মোঃ উজ্জ্বল হোসাইন জানান,আমি আমার মায়ের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চাই,আমি হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সুরুজ আলী বলেন, ওরা আমার স্ত্রীকে মেরে ফেলেছে,প্রশাসনের কাছে আমি ওদের (হত্যাকারীদের) শাস্তি চাই। এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী সাব- ইন্সপেক্টর ( নিরস্ত্র) কমল কুমার মনি জানান, আমার আসামিদেরকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছিলাম। আসামিরা আদালতে থেকে বর্তমানে জামিনে আছে তবে সুষ্ঠু বিচারের জন্য আমাদের আইনী প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।


Comments (0)


জনপ্রিয়