ঢাকা, শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২২ || ১৫ মাঘ ১৪২৮    Banglarpratidin.com

ময়মনসিংহে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মাথাবিহীন লাশের পরিচয় উদঘাটন আসামি গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ২৩:২৫ ০৬ জানুয়ারি ২২

ময়মনসিংহে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মাথাবিহীন লাশের পরিচয় উদঘাটন আসামি গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

ময়মনসিংহে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মাথাবিহীন লাশের পরিচয় উদঘাটন আসামি গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

ময়মনসিংহে ত্রিশালের ধানীখলা কাটাখালী ইউনিয়নে গত ২ই জানুয়ারি ২০২২ ইং তারিখে মাথা বিহীন এক অজ্ঞাত যুবতীর লাশ উদ্ধার করেছে ত্রিশাল থানা পুলিশ।থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ধানীখোলা ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামের জনৈক আব্দুল কদ্দুসের জমিতে ৩০ থেকে ৩৫ বছর বয়সি এক অজ্ঞাত যুবতীর লাশ স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানায়।পরে ত্রিশাল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ওই অজ্ঞাত যুবতীর মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।এ নিয়ে চারিদিকে আলোড়ন ছড়িয়ে পরে। ঘটনায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপরতায় তিন দিনেই মোবাইলের সূত্র ধরে ৫ জানুয়ারি সেলিম নামে একজনকে গ্রেফতার করে র‍্যাব-১৪। আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে ৬ জানুয়ারি দুপুর ১ টায় আসামীর দেওয়া তথ্য মতে মাথাবিহীন যুবতীর লাশের মাথা একটি পুকুর থেকে উদ্ধার করে র‍্যাব-১৪। এ বিষয়ে র‍্যাব-১৪ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার মোঃ রোকনুজ্জামান জানান,গত ২ জানুয়ারি ত্রিশাল উপজেলার ধানীখােলা ইউনিয়নের কাটাখালি গ্রামে থেকে এক অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার হয়।বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে ঘটনার সাথে জড়িত সেলিম নামে একজনের সম্পৃতক্ততা নিশ্চিত করে। পরে র‍্যাব অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে ত্রিশাল উপজেলার কাটাখালি গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে সেলিম মল্লিককে গ্রেফতার করে।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সেলিম এই হত্যাকাণ্ডটি কিভাবে ঘটিয়েছে তা স্বীকার করে। তার স্বীকারােক্তি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দুপুরে র‍্যাব সদস্যরা খন্ডিত মাথাটি উদ্ধার করে। নিহত নারী সুলতানা বেগমের বাড়ি রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার চেংমারী গ্রামে, সুলতানা চাকরির সূত্রে গাজীপুরে বাস করত। তার সাথে প্রথমে মােবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক হয়। প্রায়ই তারা একে অপরের সাথে দেখা করত।এক পর্যায়ে সুলতানা তাকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সেলিম তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে। এ হত্যাকান্ডে ত্রিশাল থানায় একটি মামলা রুজু হয়েছে।


Comments (0)


জনপ্রিয়