ঢাকা, সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২১ || ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮    Banglarpratidin.com

ত্রিশালের বইলরে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহানশাহ'র বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরতে চায় ভোটাররা

প্রকাশিত: ১৪:৩৩ ২০ নভেম্বর ২১

ত্রিশালের বইলরে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহানশাহ'র বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরতে চায় ভোটাররা

ত্রিশালের বইলরে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহানশাহ'র বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরতে চায় ভোটাররা

আরিফ রববানী,ময়মনসিংহ-ত্রিশাল উপজেলার ২ নং বৈলর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন ইউনিয়নের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও তরুণ সমাজ সেবক খন্দকার মশিহুর রহমান শাহানশাহ। বইলর ইউনিয়নের উন্নয়নের ধারাকে এগিয়ে নিতে শাহানশাহকে এবার চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় বইলরবাসী। তাই বিজয় ধরে রাখতে মোটরসাইকেল প্রতীক এর সমর্থনে বিশাল মিছিল ও মতবিনিময় করেছেন ইউনিয়নের বিভিন্ন পেশাশ্রেণীর ব্যক্তিবর্গরা। বইলরের কয়েকজন ভোটার জানান, শাহানশাহ একজন জনবান্ধব ব্যক্তি। করোনার কারণে আমরা অনেক পরিবার কর্মহীন হয়ে পরলে শাহানশাহ ভাই আমাদের পাশে থেকে আমাদের কে সব সময় সাহায্য সহযোগিতা করেছেন এবং কর্মহীন অসহায় হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে অনেক খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন এবং সব সময় আমাদের খোঁজ খবর নিয়েছেন।যে কোন সমস্যা নিয়ে আমরা শাহানশাহ ভাইয়ের নিকটে গিয়েছি তিনি আমাদের কে সহযোগিতা করেছেন।তারা আরও জানান অনেক গরিব মানুষের মেয়ের বিবাহের মধ্যে শাহানশাহ সহযোগিতা দিয়েছেন। অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসার জন্য ও সাহায্য করে থাকেন তিনি। তারা বলেন দিনে রাতে, যে কোন বিপদে আপদে ডাকলে শাহানশাহ ভাই আমাদের পাশে এসে হাজির হন।তাই আমরা সর্বস্তরের জনগণ চাই উন্নয়নের ধারা এগিয়ে নিতে রাখতে শাহানশাহ চেয়ারম্যান হিসেবে আমাদের মাঝে থাকবেন। সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন আমাদের এই স্বতন্ত্র প্রার্থী। তাঁর পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য, সর্বোপরি সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন খন্দকার মশিহুর রহমান শাহানশাহ। তাকে আমরা চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী করবো। তারা আরো বলেন- চেয়ারম্যান না থেকেও শাহানশাহ ব্যক্তিগতভাবে বিগত দিন উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য। তিনি বয়সে তরুন হলেও মনোবল হারাননি। এই সফল মানুষটি সমাজের প্রতিটি মানুষের বিপদ আপদে ছুটে যান। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উধার মানসিকতার ও দানশীল মহিলা হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন। এলাকার সাধারণ মানুষের মতে, আমরা নেতা বা চেয়ারম্যান বুঝিনা, শাহানশাহ ভাই একজন সহজ সরল পুরুষ । তিনি একজন পরোপকারী কর্মঠ সমাজ সেবক, তিনি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হলে আমাদের তথা এলাকার উপকার হবে। আমাদের দু:খ দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যাবে। ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান জনপ্রতিনিধি হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। আমরা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে তাকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছি এবং বিজয়ের মালা নিয়ে ঘরে ফিরবো। চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহানশাহ তার বক্তব্যে-ইউনিয়নের উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে তার মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করতে সর্বস্তরের ব্যক্তি বর্গদের প্রতি অনুরোধ জানান।


Comments (0)


রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
জনপ্রিয়