ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর ২১ || ৬ কার্তিক ১৪২৮    Banglarpratidin.com

জমি নিয়ে বিরোধঃ ভালুকায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৫

প্রকাশিত: ২৩:৩৯ ২৩ সেপ্টেম্বর ২১

জমি নিয়ে বিরোধঃ ভালুকায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৫

জমি নিয়ে বিরোধঃ ভালুকায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৫

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তত ৫ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ৫জনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক হলেও বর্তমানে ১জন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও বাকী ৪জন ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ সময় গুলি বর্ষণের ঘটনাও ঘটে। এ ঘটনায় ভালুকা মডেল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন আহত মনুর উদ্দিন পরধানী । অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের আমতলী গ্রামের আব্দুল হেকিম ৪ ছেলে মনুরউদ্দীন, মফিজ উদ্দীন,মাইন উদ্দিন ও মৃত রমিজ উদ্দিনের সাথে তাদের ভাগ্নে আজহার উদ্দিন ও মফিজুল হকের দীর্ঘদিন ধরে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার ২৩শে সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় আজহার উদ্দিন ও মফিজুল হকের নেতৃত্বে তাদের ভাড়াটে হাফিজ উদ্দিন, সুমন,সোহাগ, আলমগীর,খালেকসহ অজ্ঞাত সন্ত্রাসীবাহিনীরা মনুরউদ্দীন, মফিজ উদ্দীন,মাইন উদ্দিন ও রমিজের বাড়িতে হামলা চালায়। এতে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মনুরউদ্দীন,মাইন উদ্দিন,মনুর উদ্দিনের ভাতিজি সোমা ও রমিজের ছেলে ফারুক ও তার স্ত্রী পারভীন মারাত্মক ভাবে আহত হয়। এ সময় তারা বাড়িঘরে ভাংচুর চালিয়ে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় মনুর উদ্দিন কে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি ছুড়লে লক্ষভ্রষ্ট হওয়ায় মনুর উদ্দিন গুলির আঘাত থেকে বেঁচে যায়। পরে স্থানীয়রা দৌড়ে এলে সন্ত্রাসীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এসময় পরবর্তীতে প্রয়োজনে এদের হত্যা করে হলেও তারা দাবীকৃত জমি দখলে নিয়ে ছাড়বে বলেও হুমকি দিয়ে যায়। অভিযোগকারী মনুর উদ্দিন জানান, 'তাদের বাড়ীর ২২শতাংশ জমি প্রতিপক্ষ আজহার উদ্দিন ও মফিজুল হক তাদের বলে দাবী করে উক্ত জায়গা দীর্ঘদিন অবৈধভাবে জবর দখল করে নিতে পায়তারা করে আসছে। এই নিয়ে গ্রাম্য শালিশ ও ভালুকা থানায় একাধিবার শালিস বসলেও তারা এই জায়গায় তাদের মালিকানা কোন প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বা প্রমাণপত্র দেখাতে পারেনি,ঘটনার দিন তারা আমাদের পৈত্রিকসুত্রে পাওয়া উক্ত জমি জবর দখলে নিতে হাফিজ উদ্দিন, সুমন,সোহাগ, আলমগীর,খালেকসহ অজ্ঞাত সন্ত্রাসীবাহিনী নিয়ে আমাদের বাড়ীতে গিয়ে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ছেড়ে দিতে বললে এর প্রতিবাদ করায় তারা ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে ঘরের সবাইকে আহত করে এবং ভাংচুর-লুটপাট চালায়। এ সময় হামলাকারীরা ৩ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ১ লাখ ৪০ টাকার লুট করে নিয়ে যায়। আমাকে প্রাণে মেরে ফেলতে গুলিও করে,তাদের লক্ষ সঠিক না হওয়ায় আমি বেঁচে আছি, আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।'


Comments (0)