ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২১ || ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭    Banglarpratidin.com

কোনভাবেই থামছে না অবৈধভাবে মাছ ধরা সমন্বয়হীনতায় ভুগছে স্হানীয় প্রশাসন

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৩৫ ২৮ জানুয়ারি ২১

কোনভাবেই থামছে না অবৈধভাবে মাছ ধরা  সমন্বয়হীনতায় ভুগছে  স্হানীয় প্রশাসন

কোনভাবেই থামছে না অবৈধভাবে মাছ ধরা সমন্বয়হীনতায় ভুগছে স্হানীয় প্রশাসন

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার কাকৈরগড়া ইউনিয়নের গন্ডাবেড় গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া কংশ নদীতে থেকে অবৈধভাবে মাছ শিকারের ঘটনায়, জরিতদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট বা মামলা দায়েরের কথা জানালেও পরবর্তীতে উপজেলা প্রশাসনের সাথে সমন্বয়হীনতার কথা নিজেই স্বীকার করেছেন জেলা মৎস্য অফিসার ফজলুল কবির।ঐতিহ্যবাহী কংশ নদী থেকে, এক সপ্তাহ ধরে অবৈধভাবে প্রায় দশ লক্ষ টাকার মাছ শিকার করে নিচ্ছে কথিত জেলেরা। নেত্রকোনা জেলা মৎস্য অফিসার ফজলুল কবির এ ঘটনা শুরু থেকে জানলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন প্রতিকার করতে পারেননি তিনি। এর কারণ জানতে চাইলে তিনি বাংলার প্রতিদিন কে বলেন, আমরা বারবার উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করে যাচ্ছি , কিন্তু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অন্যকাজে ব্যস্ত থাকায়, নদীতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা বিলম্ব হচ্ছে। এদিকে আইন অমান্য করে প্রায় দশ লক্ষ টাকার মাছ শিকার করে নিচ্ছে কথিত জেলেরা। মাছ ধরে পালিয়ে গেলে মামলা হবে কি না এমন প্রশ্নে জেলা মৎস্য অফিসার ফজলুল কবির বলেন, আদালতে মামলা করা যেতে পারে। তবে এখনও এ ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। পরবর্তী সংবাদ পেতে চোখ রাখুন বাংলার প্রতিদিনে...